Architecture

আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন

আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন একটি ৪ বছর (৮ সেমিষ্টার) মেয়াদী কোর্স। সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে মানুষের কাজের ক্ষেত্রও বাড়ছে। নিত্য নতুন এসব কর্মক্ষেত্রে নিজেদের যুক্ত করে অনেকেই সফলভাবে তাদের ক্যারিয়ার গড়ে তুলছেন। আমাদের দেশে তেমনি একটি কর্মক্ষেত্র হচ্ছে আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং। প্রতিটি স্থানকে কাজে লাগিয়ে আসবাব, লাইট, গৃহসজ্জা সামগ্রীর যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমে বাড়ি, অফিস বা যেকোনো প্রতিষ্ঠানকে আরামদায়ক ও নান্দনিকভাবে উপস্থাপন করাই আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইনের প্রধান লক্ষ্য । আর যিনি এ কাজ দক্ষতার সাথে করে থাকেন তিনি আর্কিটেক্ট ও ইন্টেরিয়র ডিজাইনার ।

মানুষ একদিকে যেমন চায় নিজেকে সুন্দর দেখতে, অন্যদিকে চায় তার আবাসস্থল এবং ভেতরের সাজসজ্জা, অফিস-আদালত, হাসপাতাল, বিদ্যালয় থেকে শুরু করে সব কিছুর সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে। আর এ কাজটাই করতে হয় একজন আর্কিটেক্ট ও ইন্টেরিয়র ডিজাইনারকে। আপনি যে ঘরে বসবাস করছেন সে ঘরের দেয়াল, মেঝে, দরজা, জানালা, আসবাব এমনকি পর্দাটাই বা কেমন হবে সে হিসাবটা করবেন আর্কিটেক্ট ও ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। এক কথায় বলা চলে, স্থাপনার বাইরের সৌন্দর্য্য ঘরের ভেতরের দেয়ালের রঙ, মানানসই আসবাবপত্রের ডিজাইন ও রঙ থেকে শুরু করে স্বল্প পরিসরের জায়গাকে কীভাবে বেশি করে ব্যবহার করা যায়, সে বিষয়ে যাবতীয় ডিজাইন ও বাস্তবায়ন করাটাই আর্কিটেক্ট ও ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের কাজ।

আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন থেকে পাশকৃত শিক্ষার্থীদের কর্মক্ষেত্রঃ

বর্তমানে আমাদের দেশের তরুণরা এ ক্ষেত্রটিতে নিজেদের যুক্ত করে গড়ে তুলছে অন্যতম একটি সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার। বিভিন্ন আর্কিটেকচারাল কোম্পানি , রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম, ইন্টেরিয়র ডিজাইন ফার্ম, পেইন্ট কোম্পানিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের প্রচুর চাহিদা ব্যাপক । এছাড়া সরকারি বিভিন্ন সংস্থা যেমন রাজউক, কেডিএ, সিটি কর্পোরেশন, গনপূর্ত বিভাগ সহ যে কোন নির্মানমুখী চাকুরী ক্ষেত্রে এখন আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিভাগ থেকে পাশ করা শিক্ষার্থীর চাকুরীর সুযোগ তৈরি হয়েছে।

ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট থেকে পাশকৃত শিক্ষার্থীরা যে সকল প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেঃ

ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিউটে ২০১৬ সাল থেকে আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিভাগ চালু করা হয়। এই প্রতিষ্ঠানের ২০১৬-১৭ সেশনের প্রথম ব্যাচ ২০২০ সালে পাশ করে বের হবে। (পরবর্তিতে চাকুরীর তথ্য হালনাগাদ করা হবে)

ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউটের আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিভাগে কেন ভর্তি হবেন?

আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিভাগের জন্য প্রয়োজন দক্ষ-অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী যারা তাদের মেধা দিয়ে শিক্ষার্থীদের ক্রিয়েটিভিটিকে জাগ্রত করে নিত্য নতুন ডিজাইন করা শেখাবেন। ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউটে রয়েছে একদল দক্ষ-অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী ও বিভাগের উপদেষ্টা হিসেবে আছেন আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিভাগের জন্য বাস্তব কর্মক্ষেত্রে কাজ করছে এমন নামকরা আর্কিটেক্ট। এর পাশাপাশি আর্কিটেকচার এন্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইন বিভাগের হাতেকলমে কাজ শেখানোর জন্য এখানে রয়েছে আর্কিটেকচার ষ্টুডিও, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ল্যাব, কম্পিউটারের ডিজাইন সফটওয়্যারে দক্ষ করার জন্য রয়েছে আধুনিক কম্পিউটার ল্যাব। এছাড়া শিক্ষার্থীদের জ্ঞানচর্চা তরান্বিত করতে প্রতিষ্ঠানে রয়েছে সমৃদ্ধ লাইব্রেরী। এখানকার শিক্ষার্থীদের প্রতি সেমিষ্টারে একটি ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ট্যুর বাধ্যতামূলক ফলে শিক্ষার্থীরা থিওরী ও ল্যাব ক্লাসের পাশাপাশি বাস্তব কর্মক্ষেত্র সম্পর্কে ধারনা পায়।

ভর্তির যোগ্যতাঃ

যে কোন বিভাগ থেকে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা ন্যূনতম ২.৫ জিপিএ সহ উত্তীর্ণ।

টিউশন ফিঃ

ভর্তি ফি: ৫০০০/- + ৩০০০/-

মাসিক বেতন: ৫০০/- (মেয়ে শিক্ষার্থীদের মাসে বেতন ৪০০/-)

সেমিষ্টার ফি: ৩০০০/-



Mangrove Institute of Science and Technology